৮ ম্যাচ নিষিদ্ধ হলেও খেলতে বাধা নেই এই পেসারের

0
50

সর্বশেষ আপডেট জুলাই ৪, ২০২১ | ইমরান

আট ম্যাচ নিষিদ্ধ হলেও খেলতে পারবেন ইংলিশ ক্রিকেটার অলিভার রবিনসন।

গত বুধবার শুনানি শেষে রবিনসনকে আট ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ করে ইসিবির তিন সদস্যের ক্রিকেট ডিসিপ্লিন কমিটি।

ইসিবির নিষেধাজ্ঞায় এরই মধ্যে তিন ম্যাচের শাস্তি ভোগ করেছেন রবিনসন। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট খেলতে পারেননি। সাসেক্সের টি-টোয়েন্টি ব্লাস্টের দুটি ম্যাচেও খেলতে পারেননি।

এছাড়া ৩২০০ পাউন্ড জরিমানাও গুনেছেন এ পেসার।

ইসিবির ডিসিপ্লিন কমিটি জানিয়েছে, বাকি পাঁচ ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা দুই বছরের জন্য স্থগিত থাকবে রবিনসনের। সে অর্থে আগামী ম্যাচেই মাঠে ফিরতে বাধা নেই এই ইংলিশ পেসারের। ভারতের বিপক্ষের সিরিজেও খেলতে পারছেন তিনি।

তবে আগামী দুই বছর পেশাদার ক্রিকেটারদের সংগঠনের (পিসিএ) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ব্যবহার ও বৈষম্য-বিরোধী সব ট্রেনিংয়ে অংশ নিতে হবে রবিনসনকে।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাটে-বলে দুর্দান্ত অভিষেক ঘটেছিল বিনসনের। টেস্টে একজন অলরাউন্ডার পাচ্ছে ইংল্যান্ড, এমন আভাস মিলছিল। লর্ডসে ৭ উইকেট নেন অলিভার রবিনসন। ব্যাট হাতেও খেলেন দুর্দান্ত এক ইনিংস।

মাঠে যখন সবার নজর কাড়ছিলেন রবিনসন, তখনই প্রকাশ্যে আসতে থাকে তার বিতর্কিত সব টুইটবার্তা। সেখানে ফুটে উঠে মুসলিমবিদ্বেষী মনোভাব। যৌনতা নিয়েও বাজে টুইট ছিল সেখানে।

এ সব টুইট শেয়ারের সময় অলিভারের বয়স ছিল ১৮ থেকে ১৯ বছরের মধ্যে। সেই সময় লেস্টারশায়ার, কেন্ট ও ইয়র্কশায়ারের দ্বিতীয় দলের হয়ে খেলতেন তিনি।

বিষয়টি নিয়ে বিব্রতকর অবস্থায় পড়ে ইসিবি ও ইংল্যান্ড দল। ক্রিকেটে কোনো বর্ণবাদীর ঠাঁই নেই জানিয়ে তাকে নিষিদ্ধ করে ইসিবি।

অবশ্য ক্ষমা চেয়েছিলেন রবিনসন। নিজের ভুল স্বীকার করে রবিনসন জানিয়েছিলেন, আগের মতো মনোভাব ও মতাদর্শ এখন আর নেই তার মধ্যে। সে সময় অপরিপক্ষ ও নির্বোধ ছিলেন। এমন ভুল আর করবেন না।

পূর্ববর্তী সংবাদপাড়া-মহল্লায় চলবে র‌্যাবের অভিযান
পরবর্তী সংবাদদেশের বাইরে থেকে কোরবানির পশু আসবে কিনা জানালেন মন্ত্রী

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন