হারারেতে টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

0
55

সর্বশেষ আপডেট জুলাই ৭, ২০২১ | ইমরান

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ। দলে ফিরেছেন সাকিব। হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে খেলা মাঠে গড়াবে বাংলাদেশ সময় দুপুর দেড়টায়।

২০১৩ সালে সর্বশেষ জিম্বাবুয়ে সফরে একটি ম্যাচ জিতলেও দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ড্র করেছিল তামিম-সাকিবরা। ৮ বছর পর জিম্বাবুয়ের মাটিতে আরেকটি টেস্ট খেলতে যাচ্ছে মুমিনুল বাহিনী। একাদশে স্থান হয়নি পেসার তাসকিন আহমেদের। ১৬ মাস পর ফিরেছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এদিকে হাঁটুর ইনজুরির কারণে তামিমকে ছাড়াই মাঠে নামছে বাংলাদেশ। তার জায়গায় সুযোগ পেয়েছেন সাদমান ইসলাম।

দীর্ঘ ২১ বছর আগে ক্রিকেটের এই অভিজাত ফর্মেটের সদস্য হলেও এখনো বাংলাদেশ দল দুর্বল রয়ে গেছে। তারপরও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টাইগাররা সব সময়ই নিজেদের  সেরাটা দিয়ে এসেছে। তবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশ দলের  বেশিরভাগ সাফল্যই  এসেছে ২০১৩ সালের পর। একই বছরের পর থেকে  জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে  সব টেস্ট ম্যাচই  বাংলাদেশে খেলেছে নিজ মাঠে। ২০১৩ সাল থেকে  জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ছয় টেস্ট খেলে পাঁচটিতে জিতেছে টাইগাররা। মাত্র একটি ম্যাচ হেরেছে বাংলাদেশ। তবে  সাফল্যের  তুলনায়  ব্যর্থতা তেমনটা চোখে পড়েনা।

সব মিলিয়ে  জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এ পর্যন্ত ১৭ টেস্টে সাতটি জয় পেয়েছে বাংলাদেশ, যার ছয়টি এসেছে নিজ মাটিতে। পাঁচটি জয় এসেছে ২০১৩ সালের পর। বাংলাদেশ দলের প্রথম জয় এসেছে ২০০৫ সালে এবং এটাই ছিল বাংলাদেশ দলের প্রথম টেস্ট জয়। জিম্বাবুয়ের মাটিতে বাংলাদেশ দল একটি মাত্র টেস্টে জয় পেয়েছে ২০১৩ সালে। যা ছিল  বাংলাদেশ দলের সর্বশেষ জিম্বাবুয়ে সফর। সফরে বাংলাদেশ ফেবারিট হিসেবে মাঠে নামলেও দুই টেস্টের সিরিজ ১-১ ব্যবধানে শেষ করে টাইগাররা।

বাংলাদেশের বিপক্ষে জিম্বাবুয়েও সাতটি টেস্ট জিতেছে এবং তার মধ্যে পাঁচটিই নিজেদের মাটিতে। বাংলাদেশর মাটিতে তারা ২০০১ ও ২০১৮ সালে দুটি টেস্ট জিতেছে। বাকি তিন ম্যাচ শেষ হয়েছে ড্রতে।

তবে বর্তমান সময়ে জিম্বাবুয়ে থেকে সুবিধাজনক অবস্থানে আছে বাংলাদেশ। ২০১১ সালের পর থেকে নিয়মিত টেস্ট ক্রিকেট না খেলায় জিম্বাবুয়ে থেকে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। পাঁচ বছরের স্বেচ্ছা নির্বাসনের পর ২০১১ সালে পুনরায় টেস্ট ক্রিকেটে ফিরে আসার পর জিম্বাবুয়ে মাত্র ৩১টি টেস্ট খেলেছে। পক্ষান্তরে এ সময়ের মধ্যে বাংলাদেশ খেলেছে  ৫৫টি টেস্ট।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট জয়ের সম্ভাবনা নিয়ে বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল বলেন, ‘প্রস্তুতি খুব ভালো হয়েছে। দুদিনের প্রস্তুতি ম্যাচে ব্যাটসম্যান-বোলাররা সবাই ভালো করেছে। আমরা টেস্ট ম্যাচেও ভালো কিছু করার আশা করছি। আর শুধু জিম্বাবুয়েতে না, যে কোনো দেশেই অ্যাওয়ে ম্যাচ চ্যালেঞ্জিং হয়। পাঁচদিন ভালো ক্রিকেট খেললে অবশ্যই ফল আমাদের দিকে আসবে।’

বাংলাদেশ একাদশ: 

মুমিনুল হক , সাদমান ইসলাম, সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, লিটন কুমার দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাসকিন আহমেদ, ইবাদত হোসেন চৌধুরী।

জিম্বাবুয়ে একাদশ: 

রেগিস চাকাভা, রয় কাইয়া, তাকুজওয়ানাশে কাইতানো, টিমিসেন মারুমা, ব্লেসিং মুজারাবানি, ডিওন মায়ের্স, রিচার্ড এনগারাভা, ভিক্টর নিয়াউচি, মিল্টন শুম্বা, ব্রেন্ডন টেলর, ডোনাল্ড তিরিপানো।

পূর্ববর্তী সংবাদঅভিনেতা দিলীপ কুমার আর নেই
পরবর্তী সংবাদময়মনসিংহ মেডিকেলের করোনা ইউনিটে আরও ৭ জনের মৃত্যু

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন