‘একটি দল শেখ হাসিনার ব্যর্থতার গন্ধ খুঁজে বেড়ায়’

0
40

সর্বশেষ আপডেট আগস্ট ১৮, ২০২১ | ইমরান

বিএনপির নাম উচ্চারণ না করে দলটির সমালোচনা করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আব্দুর রহমান। তিনি বলেন, বাংলাদেশ বহু রাজনৈতিক দল আছে। এর মধ্যে একটা প্রধান দল, তাদের করণীয় আওয়ামী লীগের প্রধান শেখ হাসিনার ব্যর্থতার গন্ধ খুঁজে বেড়ানো। সেই সম্পর্কে বক্তব্য-বিবৃতি দেয়া।

আজ বুধবার (১৮ আগস্ট) বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ‘প্রাকৃতিক দুর্যোগ প্রশমনে বঙ্গবন্ধু দর্শন ও বর্তমান প্রেক্ষাপট’ শীর্ষক আলোচনা সভা এবং করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সামগ্রীর বিতরণ কর্মসূচির অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

আব্দুর রহমান বলেন, যারা করোনার টিকা নিয়ে সমালোচনা করত, তারা টিকা নিতে চায়নি কিন্তু গোপনে টিকা নিয়েছেন এবং পদ্মাসেতু দেখতে চাননি, অথচ আজকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে হলেও চোখ মেলে পদ্মাসেতু দেখতে হচ্ছে । যারা উন্নয়ন দেখেন না, ইচ্ছার বিরুদ্ধে হলেও তাদের উন্নয়ন প্রত্যক্ষ করতে হয়। যারা শেখ হাসিনার ভালো কর্মকে সহ্য করেন না, তারা মনের অজান্তে ভালো কর্ম স্বীকার করে নেয়।

তিনি বলেন, তাই সবধরনের সমালোচনা বাদ দিয়ে এই সরকারের কল্যাণধর্মী কাজে সহায়তা করেন। এবং মানুষের পাশে এসে দাড়ান। আমাদের রাজনীতির শিক্ষাদীক্ষা, অনুপ্রেরণা প্রাণ প্রিয় নেত্রীর কাছ থেকে অনবরত পাচ্ছি। তার নিদর্শনায় আমরা যে, যার জায়গা থেকে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছি। আমরা অবিরাম মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছি।

সাবেক ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আওয়ামী লীগ ও আওয়ামী লীগের প্রধান বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা সবসময় মানুষকে নিয়ে ভাবেন, মানুষের জন্য কাজ করেন। আজকে যদি প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা না হতেন, তাহলে এই দেশের যে কি হতো, এটা সত্যিকার অর্থে আমাদের ভাবনার মধ্যে আনা যায় না। তিনি আজ প্রধানমন্ত্রী আছেন বলেই প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলা হচ্ছে সুন্দর ও সুষ্ঠুভাবে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কথা স্মরণ করে তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনধর্মী রাজনৈতিক দর্শন, জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত মানুষের কল্যাণের ভাবনা নিয়েই জীবন দিয়েছেন। ১৯৭০ সালের ভোলাতে ১০ লাখের অধিক লোক মারা গিয়ে ছিলো, জলোচ্ছ্বাস-ঘূর্ণিঝড়ে। বঙ্গবন্ধুর নির্বাচনী সকল কাজ বন্ধ করে দিয়ে, বাংলা বাঁচাও স্লোগান দিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। মানুষকে বাঁচানোর লড়াই তিনি করেছিলেন। বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাও আজকের এই ডিজাস্টার ম্যানেজম্যান্ট যেভাবে করেছেন, এই করোনার মোকাবেলা তিনি যেভাবে কাজ করেছেন, বিস্ময়কর প্রাকৃতিক আঘাতকে মোকাবেলা করে বাংলাদেশকে এখনও সহনশীলতার মধ্যে রেখেছে, এটি অকল্পনীয়।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

এছাড়াও আরও বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কর্ণেল ( অবঃ) ফারুক খান, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেনসহ অন্যরা।

পূর্ববর্তী সংবাদদ্রুত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর
পরবর্তী সংবাদ২০ হাজার আফগান শরণার্থীকে আশ্রয় দেবে যুক্তরাজ্য

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন