শেখ রাসেল দিবস পালন করলেন মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ

0
152

সর্বশেষ আপডেট অক্টোবর ১৮, ২০২১ | ইমরান

 ডেস্ক রিপোর্ট :

শেখ রাসেল দীপ্ত জয়োল্লাস, অদম্য আত্মবিশ্বাস” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের উদ্যোগে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শেখ রাসেল দিবস পালিত হয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে ১৮ অক্টোবর সোমবার বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের প্রধান কার্যালয় ৮৮ মতিঝিলস্থ স্বাধীনতা ভবনের সম্মেলন কক্ষে স্থাপিত শহীদ শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে পূষ্পমাল্য অর্পন করে যুদ্ধাহত ও খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ এবং ট্রাস্টের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এছাড়া শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের পক্ষ হতে কেক কাটা, আলোচনা সভা, বিশেষ দোয়া ও মোনাজাতের আয়োজন করা হয়। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) এসএম মাহবুবুর রহমান।

এছাড়া বক্তব্য রাখেন যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম, ইউনুছ আলী, ফজলুর রহমান, আব্দুল লতিফ, ট্রাস্টের পরিচালক (অর্থ) ড. মোঃ আমিনুল ইসলাম ও ট্রাস্ট্রের সচিব (উপসচিব) তরফদার মোঃ আক্তার জামীল। আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, শেখ রাসেল ছিলেন বন্ধুবৎসল, প্রাণচাঞ্চল্যে ভরপুর এক মানবিক শিশু। ছোট বয়সের ব্যক্তিত্ব, মানবিকতা আর উপস্থিত বুদ্ধির কারণে শহীদ শেখ রাসেল আজ বাংলাদেশের শিশু-কিশোর, তরুণ, শুভবুদ্ধিবোধ সম্পন্ন মানুষদের কাছে ভালবাসার নাম। বেঁচে থাকলে তিনিও হয়তোবা সামিল হতেন বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের ‘সোনার বাংলা’ বিনির্মাণে।

ভিশন ২০২১, ২০৪১, এসডিজি ২০৩০, ডেল্টা প্ল্যান, চতুর্থ শিল্পবিপ্লব নিয়ে তার বোন বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখন যেমন দেশের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন, বেঁচে থাকলে তিনিও নিঃসন্দেহে নিজেকে দেশের জন্য নিয়োজিত রাখতেন। বক্তারা কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মাঝে শেখ রাসেল এর জীবনীর প্রতিটি দিনক্ষণের গল্পগুলো তুলে ধরার আহবান জানান।

পূর্ববর্তী সংবাদকিশোরগঞ্জে জাতীয়  স্যানিটেশন মাস ও বিশ্ব হাত ধোয়া  দিবস পালিত 
পরবর্তী সংবাদহোসেনপুরে ইউপি নির্বাচনে অধ্যক্ষ বেলাল হোসেনের গণসংযোগ

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন