Saturday, September 19News That Matters
Shadow

শিক্ষা

এসএসসি-এইচএসসি পেছাতে পারে

এসএসসি-এইচএসসি পেছাতে পারে

শিক্ষা
ন্যাশনাল ডেস্ক: আগামী বছরের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা পিছিয়ে যেতে পারে। করোনা পরিস্থিতির কারণে স্কুল-কলেজে লেখাপড়া না হওয়ায় এই আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার পর এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে। আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত সাধারণ ছুটি আছে। পরিস্থিতি অনুকূলে না এলে এ ছুটি আরও বাড়তে পারে। ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান এবং আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক শনিবার যুগান্তরকে বলেন, সাধারণত প্রতি বছর ফেব্রুয়ারিতে এসএসসি এবং এপ্রিলে এইচএসসি পরীক্ষা হয়। করোনাকালে প্রাতিষ্ঠানিক পাঠদান বন্ধ। এ কারণে পরীক্ষা যথাসময়ে নেয়া হবে কিনা সে ব্যাপারে এখন পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে প্রতিষ্ঠান খোলার পরে সিদ্ধান্ত জানানো হবে। সাধারণত বছরের জুলাই মাসে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রাক-নির্বাচনী আর অক্টোবরে নির্বাচনী পরীক্ষা নেয়া হয়। আর দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রাক-নির্ব
এ বছর হচ্ছে না জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা

এ বছর হচ্ছে না জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা

শিক্ষা
ন্যাশনাল ডেস্ক: করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে এ বছরের জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে না। বৃহস্পতিবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের এ তথ্য জানিয়েছেন।পরীক্ষা দুটি বাতিলের প্রস্তাবনা সংক্রান্ত সারসংক্ষেপ প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানোর পর তিনি এ বিষয়ে সম্মতি দিয়েছেন বলে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে। এর আগে করোনার কারণে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) ও ইতবেদায়ি শিক্ষা মসাপনী পরীক্ষা কেন্দ্রীয়ভাবে না নেওয়ার সিদ্ধান্ত জানায়।এছাড়া করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি ৩ অক্টোবর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।
আজ রাতে এইচএসসি ভর্তির ফল প্রকাশ

আজ রাতে এইচএসসি ভর্তির ফল প্রকাশ

শিক্ষা
ন্যাশনাল ডেস্ক: একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির ১ম ধাপের ফল আজ রাত ৮টায় প্রকাশ করা হবে। ওই ফল শিক্ষার্থীদের এসএমএসে জানানো হবে। একই সঙ্গে একটি কোড নম্বর পাঠানো হবে। এ কোডটি ভর্তির জন্য সংগ্রহ করতে হবে। আর ভর্তির নির্ধারিত ওয়েবসাইটেও একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির ফল জানা যাবে। বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) সহায়তায় এবারও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে কলেজ ও মাদ্রাসায় ভর্তি কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে। অনলাইনে আবেদন করতে হয়েছে এই ঠিকানায়। আর টেলিটক মোবাইলের মাধ্যমে এসএমএস করে আবেদন করা গেছে। পছন্দক্রম দিয়ে একজন ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থী সর্বোচ্চ ১০টি কলেজে আবেদন করতে পেরেছে। করোনা মহামারীর মধ্যে (গত ৯ আগস্ট) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন শুরু হয়। ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ভর্তি কার্যক্রম শেষ হবে। শিক্ষামন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, একাদশ শ্রেণিতে এইচএসসি ও আলিম শিক্ষার্থীদের ভর্তির ১ম
এ বছর পিইসি পরীক্ষা হচ্ছে না

এ বছর পিইসি পরীক্ষা হচ্ছে না

শিক্ষা
ন্যাশনাল ডেস্ক: করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে এ বছর কেন্দ্রীয়ভাবে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে না। মঙ্গলবার সচিবালয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে এবার প্রাথমিক সমাপনী ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা গ্রহণ না করার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী সম্মতি দিয়েছেন। এবার প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা হচ্ছে না। স্কুলগুলোতে বার্ষিক পরীক্ষা নেওয়া হবে। এদিকে স্কুল-কলেজে আরও ছুটি বাড়ানোর চিন্তাভাবনা করছে সরকার। করোনাভাইরাস পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়ায় বর্তমান ছুটি শেষে এটি আরও বাড়ানো হতে পারে। নতুন করে আরও ১৫ দিন ছুটি বাড়ানো হতে পারে বলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে।
স্কুল-কলেজ খোলার সময় এখনো হয়নি : মন্ত্রিপরিষদ সচিব

স্কুল-কলেজ খোলার সময় এখনো হয়নি : মন্ত্রিপরিষদ সচিব

শিক্ষা
ন্যাশনাল ডেস্ক: করোনাভাইরাসের প্রকোপ না কমায় এখনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার সময় হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্ত জানানোর সময় আজ সোমবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি এ কথা বলেন। খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘স্কুল, কলেজ এখনো খোলার মতো সময় এসেছে বলে আমাদের কাছে মনে হচ্ছে না। তবে পরীক্ষার বিষয়ে উনারা (মন্ত্রণালয়) খুব স্ট্রংলি চিন্তা-ভাবনা করছেন, কীভাবে কী করা যায়।’ এইচএসসি এবং এবারের জেএসসি-জেডিসি এবং প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষার নিয়ে মন্ত্রিসভায় কোনো আলোচনা হয়েছে কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘এইচএসসি ও অন্যান্য পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় আলোচনা করেছে; তারা দেখবে, দেখে কুইকলি একটা সিদ্ধান্ত নেবে।’ এর আগে করোনাভাইরাসের প্রকোপ না কমায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার সময় হয়নি বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি এবং প্র
চলতি বছর প্রাথমিক সমাপনী না নেওয়ার প্রস্তাব মন্ত্রণালয়ের

চলতি বছর প্রাথমিক সমাপনী না নেওয়ার প্রস্তাব মন্ত্রণালয়ের

শিক্ষা
ন্যাশনাল ডেস্ক: চলতি বছরের পঞ্চম শ্রেণি শেষে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা না নেওয়ার প্রস্তাব করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতির কারণে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন এ ব্যাপারে বলেন, ‌‌‌‌‌‌‘আজ বুধবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এই প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে।’ গতকাল মঙ্গলবার প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন এ সিদ্ধান্তের লিখিত পত্রে সই করেন। পরে আজ প্রস্তাবটি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হয়। মন্ত্রণালয়ের কয়েকজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা চলতি বছরের পঞ্চম শ্রেণি শেষে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা না নেওয়ার প্রস্তাব করার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তারা আরও জানান, বিষয়টি নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এদিকে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা এ বছর না নেওয়
উচ্চধাপে নির্ধারিত হল প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন

উচ্চধাপে নির্ধারিত হল প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন

শিক্ষা
ন্যাশনাল  ডেস্ক: সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের বেতন উচ্চধাপে নির্ধারণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। নির্দেশনায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের উন্নীত স্কেলে বেতন নির্ধারণের ক্ষেত্রে অর্থ বিভাগের কয়েকটি সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়েছে। এর আগে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের বেতন উচ্চধাপে নির্ধারণ চেয়ে গত ২৮ জুলাই অর্থ মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেয় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।সহকারী শিক্ষকদের বেতন ১৩তম ও প্রধান শিক্ষকদের বেতন ১১তম গ্রেডে উন্নীত করা হলেও অনেক শিক্ষকের এতে বৈষম্যের শিকার হওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করে চিঠিতে বলা হয়, সারাদেশে ৬৫ হাজার ৬২০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তিন লাখ ৫৪ হাজার ৭৭২ জন শিক্ষক আছেন। বেতন স্কেল উন্নীতকরণ সরকারের একটি যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত হওয়া সত্ত্বেও মাঠপর্যায়ে শিক্ষকদের মধ্যে হতাশ
স্বাস্থ্যবিধি মেনে সেপ্টেম্বরে হতে পারে এইচএসসি পরীক্ষা

স্বাস্থ্যবিধি মেনে সেপ্টেম্বরে হতে পারে এইচএসসি পরীক্ষা

শিক্ষা
ন্যাশনাল ডেস্ক: স্থগিত এইচএসসি পরীক্ষা নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করে এই পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে। ছাত্রছাত্রীদের বসানো হবে ‘জেড’ আকারে। এতে প্রথম বেঞ্চে দুইজন, দ্বিতীয় বেঞ্চে মাঝখানে একজন আর তৃতীয় বেঞ্চে দুইজনের আসন ব্যবস্থা করা হবে। এভাবে গোটা কক্ষে শিক্ষার্থীদের বসানো হবে। প্রত্যেক শিক্ষার্থীর মধ্যে দূরত্ব থাকবে কমপক্ষে তিন ফুট। সেই হিসাবে একেকটি উপজেলায় মোট পরীক্ষার্থীর তুলনায় কয়টি কক্ষ ও কেন্দ্র-উপকেন্দ্র লাগবে, সারা দেশে সেই সমীক্ষা চলছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারা (ইউএনও) স্থানীয় শিক্ষকদের নিয়ে এ ব্যাপারে কাজ করছেন। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। ইতঃপূর্বে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ঘোষণা ছিল যে, শ্রেণি কার্যক্রম শুরুর ১৫ দিন পর এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা নেয়া হবে। কিন্তু পরিস্থিতি বিবেচনায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরুর বিষয়টি এখনও অনেকটাই অনিশ্
অটো পাস: ডিসেম্বরেই চলতি শিক্ষাবর্ষ শেষ করার চিন্তা

অটো পাস: ডিসেম্বরেই চলতি শিক্ষাবর্ষ শেষ করার চিন্তা

শিক্ষা
ন্যাশনাল ডেস্ক: চলতি শিক্ষাবর্ষ আর না বাড়িয়ে এ বছরের মধ্যেই ছাত্রছাত্রীদের শ্রেণিভিত্তিক লেখাপড়া শেষ করার পরিকল্পনা করছে সরকার। আগামী সেপ্টেম্বর থেকে নভেম্বরের মধ্যে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া সম্ভব হলে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসেই ডিসেম্বরে সব পরীক্ষা নেওয়া হবে। নভেম্বরের মধ্যে তা সম্ভব না হলে শিক্ষার্থীদের পরবর্তী শ্রেণিতে দেওয়া হবে 'অটো পাস'। এই উভয় ক্ষেত্রেই পাঠ্যবই বা সিলেবাসের যে অংশটুকু পড়ানো সম্ভব হবে না, তার অত্যাবশ্যকীয় পাঠ পরের শ্রেণিতে দেওয়া হবে। এ জন্য জাতীয় পাঠ্যক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) 'কারিকুলাম ম্যাপিং' করে দেবে। এ লক্ষ্যেই বুধবার এনসিটিবিতে কারিকুলাম বিশেষজ্ঞদের বৈঠক শুরু হচ্ছে। এ ছাড়া কয়েক দিন ধরে এ নিয়ে ময়মনসিংহে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা একাডেমিতে (নেপ) বিশেষজ্ঞদের বৈঠক চলছে। গত সপ্তাহে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণা
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার কথা ভাবছে সরকার

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার কথা ভাবছে সরকার

শিক্ষা
ন্যাশনাল ডেস্ক: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, পরিস্থিতি অনুকূলে এলে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নিয়ে যথাসময়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার কথা ভাবছে সরকার। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকা এবং বাসা বাড়িতে অবস্থান করায় শিশু-কিশোর এবং তরুণদের মানসিক চাপ বেড়েছে। সরকার সামগ্রিক দিক বিবেচনা করে এবং সার্বিক পরিস্থিতি পর্যালোচনার ভিত্তিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখেছে। তবে যথাসময়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলার আগে অভিভাবকদের ধৈর্য ও সহনশীলতার সাথে পরিস্থিতি মোকাবেলার আহ্বান জানান তিনি। সোমবার (১০ আগস্ট) মন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ময়মনসিংহ সড়ক জোন, বিআরটিএ ও বিআরটিসির কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় সভায় এ মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, কোথাও কোথাও গণপরিবহন স্বাস্থ্যবিধি এবং মালিক-শ্রমিকদের প্রতিশ্রুতি সমন্বয় করা ভাড